মাদ্রাসাগুলোতে স্বাধীনতা দিবস উদযাপনের নির্দেশ

দেশের সব মাদ্রাসায় সোমবার ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচি পালনে নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড। এ ছাড়াও মাদ্রাসাগুলোকে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, স্মৃতিচারণ, আলোচনা, বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা অনুষ্ঠান আয়োজন করতে বলা হয়েছে। যেসব মাদ্রাসা সরকারের এ নির্দেশনা অমান্য করবে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর এ কে এম ছায়েফউল্লাহ সমকালকে বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের কারণে আমরা সোমবার সারাবিশ্বের কাছে অনেক সম্মানিত। এই স্বাধীনতা না হলে বাংলাদেশ আজ এ অবস্থানে আসতো না। সুতরাং আমাদের স্বাধীনতা দিবসকে সম্মানের সাথে উদযাপন করতে হবে। সব মাদ্রাসায় এ নির্দেশনা পালন করতে হবে। কোনো প্রতিষ্ঠান এ নির্দেশনা না মানলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্প্রতি মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের নির্দেশক্রমে রেজিস্ট্রার মো. মজিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এ সম্পর্কিত একটি নির্দেশনা দেশের সব মাদ্রাসার অধ্যক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। এতে বলা হয়, ২৫ মার্চ মাদ্রাসায় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কণ্ঠে ২৫ মার্চ গণহত্যার স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভার আয়োজন করতে হবে। এ উপলক্ষে একই দিন ২৫ মার্চ রাতে নিহতদের স্মরণে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা করতে হবে।

পরদিন ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে মাদ্রাসাগুলোতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করতে এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে। এদিন সকালে দেশের সব বিভাগ, জেলা, উপজেলা পর্যায়ে কুচকাওয়াজ, ছাত্র-ছাত্রীদের সমাবেশ ক্রীড়া অনুষ্ঠানেও মাদ্রাসাগুলোর শিক্ষার্থীদের অংশ নিতে হবে। এ ছাড়া জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ফুটবল ম্যাচ অথবা দেশীয় খেলার আয়োজনের কথাও বলা হয়েছে।