বিশ্বের সবচেয়ে বেশি আয় করা ফুটবলার মেসির উপার্জন এবার আরও ফুলে-ফেঁপে উঠতে পারে। ইউরোপে দীর্ঘ এক আইনি লড়াইয়ে জয়ী হওয়ায় আর্জেন্টাইন তারকার সামনে এমন সুযোগই হাতছানি দিচ্ছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লিওনেল মেসি এখন ক্রীড়া পণ্যে নিজের নাম ‘ট্রেডমার্ক’ হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন। গত সাত বছর ধরে আইনি লড়াই চলার পর ইউরোপের একটি আদালত মেসির পক্ষে এই রায় দিয়েছে।

বার্সেলোনা তারকা মেসি সাত বছর আগে নিজের নামে ‘ট্রেডমার্ক’ হিসেবে নিবন্ধনের জন্য আদালতে আবেদন করেছিলেন, যাতে ক্রীড়া পণ্যে নিজের নাম ‘ট্রেডমার্ক’ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন তিনি। তবে মেসির সেই আবেদন চ্যালেঞ্জ করে স্প্যানিশ একটি সাইক্লিং ব্র্যান্ড। এই ব্র্যান্ডের নাম ‘ম্যাসি’। ইংরেজিতে যা লেখা হয় Massi বানানে। অন্যদিকে ফুটবলার মেসির নামের ইংরেজি বানান হচ্ছে Messi।

স্প্যানিশ ব্র্যান্ডের যুক্তি ছিল, দু’টি নাম একইরকম এবং ইংরেজি বানানও খুব কাছাকাছি। সে কারণে বিশ্বে পণ্যের ক্রেতাদের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হতে পারে।

তবে সাইক্লিং ব্র্যান্ড ‘ম্যাসি’র যুক্তি আদালতে টেকেনি। শেষ পর্যন্ত ইউরোপের আদালত মেসির পক্ষেই রায় দিয়েছে।

আদালতের এই আদেশ এমন সময়ে দেওয়া হলো যখন দু’দিন আগেই ফ্রান্স ফুটবল সাময়িকী বলেছে, বিশ্বে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি আয় করা ফুটবলারের নাম লিওনেল মেসি। আয়ের দিক থেকে তিনি পর্তুগিজ তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ছাড়িয়ে গেছেন।

ফরাসি সাময়িকীটির হিসাব অনুযায়ী, এই মৌসুমে মেসির আয় ১২ কোটি ৬০ লাখ ডলার।