শিশু নীতিমালা অমান্য করায় ইউটিউবকে ১৭ কোটি মার্কিন ডলার জরিমানা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ১ হাজার ৪৩৪ কোটি টাকারও বেশি। এ রায়ে শিশুদের জন্য নির্মিত ভিডিওতে বিজ্ঞাপন সীমিত করতেও বলা হয়েছে।
ফেডারেল ট্রেড কমিশনের (এফটিসি) সঙ্গে মীমাংসায় জরিমানা দিতে রাজি হয়েছে ইউটিউবের মালিক প্রতিষ্ঠান গুগল।

ইউএস ফেডারেল ট্রেড কমিশন (এফটিসি) জানায়, ১৩ বছরের নিচের শিশুদের তথ্য সংগ্রহের ক্ষেত্রে পিতা-মাতার সম্মতি নিতে ব্যর্থ হয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম ভিডিও-শেয়ারিং সাইটটি।

এফটিসির পক্ষ থেকে বলা হয়, এই ডেটা ব্যবহার করে শিশুদেরকে লক্ষ্য করে বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছিলো, যা ১৯৯৮ চিলড্রেন’স অনলাইন প্রাইভেসি প্রোটেকশন অ্যাক্ট (সিওপিপিএ) অমান্য করছে।

এফটিসি চেয়ারম্যান জো সিমন্স বলেন, এই আইন অমান্য করায় ইউটিউবের কোনো অজুহাত নেই। তিনি আরো জানান, সিওপিপিএ’র অধীনে দেওয়া আগের বৃহত্তম জরিমানার চেয়েও ত্রিশ গুণ বেশি অর্থ দিতে হচ্ছে গুগলকে। এই গুরুত্বপূর্ণ রায়টি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম, কনটেন্ট প্রোভাইডার ও জন সাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে।

এফটিসিকে গুগল জরিমানা দেবে ১৩ কোটি ৬০ লাখ মার্কিন ডলার, যা সিওপিপিএ মামলার ইতিহাসে সর্বোচ্চ। বাকি ৩.৪ কোটি ডলার দিতে হবে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যকে।