গতকাল ১৫ সেপ্টেম্বর কলকাতায় অনুষ্ঠিত হয়েছে ছায়ানট – দক্ষিণী যৌথ প্রযোজনায় জি ডি বিড়লা সভাঘরে রবীন্দ্র স্মরণে এক মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথী অনেকের মতে, ছায়ানটের পরিবেশনায় এই অনুষ্ঠানটি যারা দেখেছেন তাঁরা সকলই বাক্রুদ্ধ। নৃত্যগীতিআলেখ্য,সমবেত সংগীত, নাচ, পাঠ এবং একক গান সবকিছুই অসাধারণ ছিল। শিল্পীরা অত্যন্ত পরিশীলিত ঢঙে ও যথাযথ স্বরলিপিবদ্ধ সুরটিকে আশ্রয় করেই গান পরিবেশন করেছেন।
গতকালের অনুষ্ঠানে যাঁরা অংশ নিয়েছেন তাঁরা হলেন –
গান –
লাইসা আহমদ লিসা, তানিয়া মান্নান, এটিএম জাহাঙ্গীর, সত্যম্‌ কুমার দেবনাথ, সেঁজুতি বড়ুয়া, চঞ্চল কৃষ্ণ বড়াল, মোস্তাফিজুর রহমান তূর্য, নাইমা ইসলাম নাজ, অভয়া দত্ত,সেমন্তী মঞ্জরী, তাহমিদ ওয়াসিফ ঋভু,ফারজানা আক্তার পপি, ও পার্থ প্রতীম রায়।
নাচ –
শর্মিলা বন্দ্যোপাধ্যায়, সুদেষ্ণা স্বয়ম্প্রভা, মেঘমালা মেঘশ্রী রহমান, আনিকা তেহেসীন সুরভী, মো. শফিকুল ইসলাম, মেহরাজ হক, সাইফুল ইসলাম ইভান, কৃষ্ণা রায়, নোশিন আনজুম ও ফুলেশ্বরী পারমিতা পুষ্প
পা – ডালিয়া আহমেদ, জয়ন্ত কুমার রায়
তবলা – এনামুল হক ওমর, স্বরূপ হোসেন

অনুষ্ঠানের আগত এক অতিথী সামিরেন্দ্রপালের মতে একটি নৃত্যগীতালেখ্য ‘রবীন্দ্রনাথের হাতে হাত রেখে’ মধ্য দিয়ে স্বদেশপ্রেম, মাতৃভাষার জন্য সংগ্রামকে ফুটিয়ে তোলা সহজ নয়। নিরলস অনুশীলন, চটক বর্জন ও প্রতিভা অন্বেষণ এই প্রক্রিয়াগুলিকে সজীব রেখে ছায়ানট এই অসাধ্য সাধন করেছে।
অনুষ্ঠানটির পরিকল্পনা ও সম্পাদনা: সন্‌জীদা খাতুন
অনুলিখন: পার্থ তানভীর নভেদ্
সঙ্গীত পরিচালনা: লাইসা আহমদ লিসা
নৃত্য পরিকল্পনা ও পরিচালনা: শর্মিলা বন্দ্যোপাধ্যায়

প্রতিবেদন: সোনালি সকাল