ব্রিটিশ পার্লামেন্ট স্থগিতের ঘোষণা বেআইনি ঘোষণা করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। চলতি মাসের প্রথম দিকে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন পাঁচ সপ্তাহের জন্য পার্লামেন্ট স্থগিত ঘোষণা করেন। সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, আগামী ৩১ অক্টোবর ব্রেক্সিট কার্যকর করতে পার্লামেন্ট স্থগিতের ঘোষণা ছিল ভুল। খবর বিবিসির।

সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ল্যাডি হেল বলেছেন, আমাদের গণতন্ত্রের মৌলিক কাঠামোর উপর মারাত্মকভাবে আঘাত করবে। তিনি আরও বলেন, পার্লামেন্ট স্থগিতে রানীকে উপদেশ দেয়াটা ছিল বেআইনি। কারণ এর ফলে কোনো যৌক্তিক কারণ ছাড়া পার্লামেন্টকে তার সাংবিধানিক ক্ষমতা প্রয়োগে বাঁধা দেয়া হয়েছে।
ল্যাডি হেল একথাও বলেছেন, সুপ্রিম কোর্টের ১১ সদস্যের বেঞ্চ সর্বসম্মতভাবে এই রায় দিয়েছেন। তারা বলেছেন, পার্লামেন্ট স্থগিত সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত বাতিল ও অকার্যকর ঘোষণা করা হলো। এখন পার্লামেন্টের উভয় কক্ষের স্পিকার তাদের কার্যক্রম বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।

আদালতের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে কমন্স সভার স্পিকার জন বার্কো বলেছেন, এখন দেরি না করে আমাদের একত্রিত হওয়া দরকার। এ বিষয়ে জরুরি ভিত্তিতে তিনি রাজনৈতিক দলগুলোর নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনা করবেন বলে জানান।