শিল্পী কালিদাস কর্মকার মারা গেছেন। শুক্রবার বিকালে অচেতন অবস্থায় ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।
ল্যাবএইড হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বেলা ৩টার দিকে কালিদাস কর্মকারকে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর।

চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন জানান, দুপুরে ইস্কাটনের বাসার বাথরুমে গোসল করতে গেলে সেখানে পড়ে যান কালিদাস কর্মকার। পরে অচেতন অবস্থায় তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
কালিদাস কর্মকারের দুই মেয়ে কঙ্কা কর্মকার ও কেয়া কর্মকার যুক্তরাষ্ট্রে থাকেন। তারা দেশে ফিরলে শেষকৃত্য হবে বলে জানায় তার পরিবার। তার আগে বারডেম হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হবে তার মরদেহ।

কালিদাস কর্মকার সমকালীন চিত্রশিল্পে নিরীক্ষাধর্মী শিল্পকর্মের জন্য পরিচিত। চারুকলায় অবদানের জন্য ২০১৮ সালে এই শিল্পীকে একুশে পদকে ভূষিত করা হয়। এছাড়া সুলতান স্বর্ণপদকসহ বিভিন্ন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন তিনি।

১৯৪৬ সালে ফরিদপুর শহরের নিলটুলীতে জন্মগ্রহণ করেন কালিদাস কর্মকার। তিনি ১৯৬২-৬৪ এই তিন বছর তৎকালীন ঢাকা আর্ট ইন্সটিটিউট থেকে দুই বছরের সূচনা কোর্স শেষ করেন। এরপর ১৯৬৯ সালে কলকাতায় সরকারি আর্ট কলেজ থেকে চারুকলায় স্নাতক করেন। দেশে-বিদেশে এ শিল্পীর ৭০-এর বেশি চিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া তিনি বহু আন্তর্জাতিক দলবদ্ধ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ ও আন্তর্জাতিক সম্মান লাভ করেছেন।